1. abirnewsroom@gmail.com : Abir Akash : Abir Akash
  2. admin@shadinbangla24.com : স্বাধীনবাংলা24ডটকম : MD NUR
  3. lakshmipuronline@yahoo.com : কাসেমপণ্ডিত : কাসেম পণ্ডিত
  4. mrinalkanti1818@gmail.com : Mrinal Kanti Majumder : নিজস্ব প্রতিনিধি
  5. www.noyonkomar96@gmail.com : noyon komar : noyon komar
  6. nurhosseneub@gmail.com : nur hossan : মুহাম্মদ নোমান ছিদ্দীকী
যমজ শিশুর দুজন বাবা - স্বাধীন বাংলা24 ডটকম
শনিবার, ০১ অক্টোবর ২০২২, ০৪:১৯ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
কমলনগরে অন্তঃসত্ত্বা মায়ের পেটে লাথি মেরে শিশুকে হত্যা গুজবে কান না দিয়ে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বজায় রাখুন:এসপি শহীদুল ইসলাম দাগনভূঞায় পূজা মন্ডপে আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি বজায় রাখতে আনসার-ভিডিপি সদস্যদের ব্রিফিং দাগনভূঞায় বিশ্ব জলাতঙ্ক দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা বেগমগঞ্জ উপজেলায় প্রধানমন্ত্রীর ৭৬তম জন্মদিন পালিত দাগনভূঞায় ইউনিয়ন পরিষদ সংক্রান্ত মৌলিক প্রশিক্ষণ দাগনভূঞায় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের উদ্যোগে পূজা মন্ডপে স্বাস্থ্য সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ নোয়াখালীতে প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলের চেক বিতরণ কোম্পানীগঞ্জে সম্প্রীতি সমাবেশ অনুষ্ঠিত দাগনভূঞায় আইসিটি দক্ষতা উন্নয়ন ও ভার্চুয়াল কমিউনিকেশন বিষয়ক প্রশিক্ষণ সম্পন্ন




যমজ শিশুর দুজন বাবা

  • সর্বশেষ আপডেট : শুক্রবার, ১১ জুন, ২০২১
  • ১৯৭ বার পড়া হয়েছে

যমজ শিশুর দুজন বাবা

অনলাইন ডেক্সঃ যমজ দুই শিশু একই মায়ের গর্ভে জন্ম নিলেও তাদের বাবা কিন্তু দুই জন। এমনি ঘটনা ঘটেছে কানাডায়। সায়মন এবং গ্রিম বার্নি-এডওয়ার্ডস দুই ব্রিটিশ ব্যক্তি সিদ্ধান্ত নিলেন যে তারা বাবা হবেন। তবে এই বাবা হওয়া তাদের জন্য বড় চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়ায়।

ব্রিটিশ দম্পতির ভিট্রো ফার্টিলাইজেশান বা আইভিএফ-গর্ভাধান পদ্ধতির সময় দুইজনের থেকে একটি করে ভ্রূণ বেছে নেয়। দুটি ভ্রূণ একই সঙ্গে একই সময়ে একজন সারোগেট মায়ের শরীরে ইমপ্ল্যান্ট করা হয়।

কানাডার নাগরিক সারোগেট মায়ের নাম মেগ স্টোন। যিনি সায়মন এবং গ্রিমের সন্তান জন্ম দেয়ার ব্যাপারে রাজি হয়ে যান।

সায়মন বলেন, সন্তান জন্মদানের জন্য আমরা কানাডাকে বেছে নিয়েছিলাম। কারণ কানাডার আইনি প্রক্রিয়া আমাদের পছন্দ হয়েছে। এই সন্তান জন্মদানের পদ্ধতি অনেকটা যুক্তরাজ্যের মতো। সন্তান জন্মদানের এই পদ্ধতিকে তারা কল্যাণ হিসেবে দেখছেন।

একটি সংস্থা একজন সারোগেট মায়ের থেকে একইসঙ্গে দুটি সন্তান জন্মদানের সম্ভাবনার কথা জানায়। সারোগেট মাকে খুঁজে পেতেও সহায়তা করে সংস্থাটি।

সায়মন বলেন,আমাদের গর্ভাধারনের চিকিৎসা করা হয়েছিল যুক্তরাষ্ট্রের নেভাডা অঙ্গরাজ্যের লাস ভেগাসে। এ সময় ভেগাসে আমরা একজন সারোগেট মাকে পেয়ে যাই।

সারোগেট মায়ের শরীরে অর্ধেক সায়মন ও অর্ধেক গ্রিমের শুক্রাণু ফার্টিলাইজ করা হয়। শক্তিশালী ভ্রূণটি থেকে গর্ভধারণ করেন এই সারোগেট মা।

সন্তান জন্মদানের এই প্রক্রিয়া শেষ হওয়ার পর ওই দুই ব্রিটিশ ব্যক্তি যুক্তরাজ্যে ফিরে আসেন। তবে প্রতিনিয়ত কানাডা থেকে একটা ভাল খবরের প্রতীক্ষায় থাকতেন তারা। অবশেষে তাদের সন্তান পৃথিবীর আলো দেখে। পরে ওই মা কানাডায় দুটি জমজ সন্তানের জন্ম দেন।

 

অনলাইন ডেক্সঃ যমজ দুই শিশু একই মায়ের গর্ভে জন্ম নিলেও তাদের বাবা কিন্তু দুই জন। এমনি ঘটনা ঘটেছে কানাডায়। সায়মন এবং গ্রিম বার্নি-এডওয়ার্ডস দুই ব্রিটিশ ব্যক্তি সিদ্ধান্ত নিলেন যে তারা বাবা হবেন। তবে এই বাবা হওয়া তাদের জন্য বড় চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়ায়।

ব্রিটিশ দম্পতির ভিট্রো ফার্টিলাইজেশান বা আইভিএফ-গর্ভাধান পদ্ধতির সময় দুইজনের থেকে একটি করে ভ্রূণ বেছে নেয়। দুটি ভ্রূণ একই সঙ্গে একই সময়ে একজন সারোগেট মায়ের শরীরে ইমপ্ল্যান্ট করা হয়।

কানাডার নাগরিক সারোগেট মায়ের নাম মেগ স্টোন। যিনি সায়মন এবং গ্রিমের সন্তান জন্ম দেয়ার ব্যাপারে রাজি হয়ে যান।

সায়মন বলেন, সন্তান জন্মদানের জন্য আমরা কানাডাকে বেছে নিয়েছিলাম। কারণ কানাডার আইনি প্রক্রিয়া আমাদের পছন্দ হয়েছে। এই সন্তান জন্মদানের পদ্ধতি অনেকটা যুক্তরাজ্যের মতো। সন্তান জন্মদানের এই পদ্ধতিকে তারা কল্যাণ হিসেবে দেখছেন।

একটি সংস্থা একজন সারোগেট মায়ের থেকে একইসঙ্গে দুটি সন্তান জন্মদানের সম্ভাবনার কথা জানায়। সারোগেট মাকে খুঁজে পেতেও সহায়তা করে সংস্থাটি।

সায়মন বলেন,আমাদের গর্ভাধারনের চিকিৎসা করা হয়েছিল যুক্তরাষ্ট্রের নেভাডা অঙ্গরাজ্যের লাস ভেগাসে। এ সময় ভেগাসে আমরা একজন সারোগেট মাকে পেয়ে যাই।

সারোগেট মায়ের শরীরে অর্ধেক সায়মন ও অর্ধেক গ্রিমের শুক্রাণু ফার্টিলাইজ করা হয়। শক্তিশালী ভ্রূণটি থেকে গর্ভধারণ করেন এই সারোগেট মা।

সন্তান জন্মদানের এই প্রক্রিয়া শেষ হওয়ার পর ওই দুই ব্রিটিশ ব্যক্তি যুক্তরাজ্যে ফিরে আসেন। তবে প্রতিনিয়ত কানাডা থেকে একটা ভাল খবরের প্রতীক্ষায় থাকতেন তারা। অবশেষে তাদের সন্তান পৃথিবীর আলো দেখে। পরে ওই মা কানাডায় দুটি জমজ সন্তানের জন্ম দেন।

 

Facebook Comments




আরো পড়ুন




ফেসবুক পেজ






© All rights reserved © shadinbangla24.com
Theme Developed BY Desig Host BD